মঙ্গলবার , ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৬ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ নিউজ
  8. খুলনা বিভাগ
  9. খেলাধুলা
  10. চট্টগ্রাম বিভাগ
  11. চাকরি
  12. জাতীয়
  13. ঢাকা বিভাগ
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম

চারাগাঁও সীমান্তে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে কয়লা ও পাথর পাচাঁরের অভিযোগ

প্রতিবেদক
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২৩ ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের চারাগাঁও সীমান্তে লাখলাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে প্রতিরাতে ভারত থেকে অবৈধ ভাবে কয়লা ও চুনাপাথরসহ চিনি, সুপারী ও মাদকদ্রব্য পাচাঁর করা হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- গতকাল সোমবার (২৫ সেপ্টেম্ভর) রাত ১১টা থেকে আজ মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্ভর) ভোর ৫টা পর্যন্ত জেলার চারাগাঁও সীমান্তের লামাকাটা, জঙ্গলবাড়ি, কলাগাঁও, চারাগাঁও এলসি পয়েন্ট, বাঁশতলা ও লালঘাট এলাকা দিয়ে একযোগে কয়লা, চুনাপাথর, চিনি, সুপারী ও মাদকদ্রব্য পাচাঁর করে অর্ধশতাধিক ইঞ্জিনের নৌকা বোঝাই করে পাটলাই নদী দিয়ে নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা নিয়ে গেছে স্থানীয় চোরাকারবারীরা। পরে পাচাঁরকৃত প্রতিনৌকা (২০মেঃটন) অবৈধ মালামাল থেকে বিজিবি ক্যাম্পের নামে, সোর্স পরিচয়ধারী চোরাচালান মামলার আসামী আইনাল মিয়া তার সহযোগী সাইফুল মিয়া ৫হাজার টাকা চাঁদা নেওয়াসহ থানা-পুলিশ ও সাংবাদিকদের নাম ভাংগিয়ে সোর্স পরিচয়ধারী চোরাচালান মামলার আসামী রফ মিয়া ২০হাজার টাকা করে চাঁদা নেয়। এই চোরাচালান ও চাঁদাবাজি বাণিজ্য করে সোর্স ও তাদের গডফাদার গত ২ বছরে কোটিকোটি টাকা মালিক হয়েগেছে বলে জানা গেছে। এব্যাপারে কয়লা ও চুনাপাথর আমদানী কারক আবুল বাশার খান নয়ন বলেন- সীমান্তের যেদিকে যাই শুধু তোতলা আজাদের নাম শুনতে পাই। তার নেতৃত্বে চোরাকারবারী নেকবর আলী চোরাই কয়লার ব্যবসা করছে, আর রফ মিয়া সোর্স পরিচয় দিয়ে ওপেন চাঁদাবাজি করছে বলে এলাকার লোকজন অভিযোগ করেছে। তাই এব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগীতা প্রয়োজন। উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্মার ও আমদানী কারক রাশিদ মিয়া বলেন- আমার ওয়ার্ডের জঙ্গলবাড়ি, কলাগাঁও, এলসি পয়েন্ট, বাঁশতলা ও লালঘাট এলাকা দিয়ে প্রতিদিন রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে কয়লা ও পাথর পাচাঁর করা হচ্ছে। জানতে পারছি হাবিব সারোয়ার তোতলা আজাদ মিয়া পার্টনার শিপে চোরাই কয়লার ব্যবসা করছে। সে বললে কয়লা পাচাঁর হয় আর
না করলে বন্ধ থাকে। আর আমরা সরকারের রাজস্ব দিয়ে বৈধ ভাবে কয়লা আমদানী করে বিক্রি করতে পারিনা। চারাগাঁও ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার তাজুল ইসলাম বলেন- বিজিবির চোখে ফাঁকি দিয়ে এলাকার মানুষ কয়লা ও পাথর পাচাঁর করে। তবে সামনে পড়লে কাউকে ছাড়বনা। পাচাঁরকৃত অবৈধ মালামাল থেকে বিজিবি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ
বিভিন্ন নামে চাঁদা উত্তোলনের খবর শুনতে পাই। কিন্তু সরাসরি কাউকে খোঁজে পাইনা। তাহিরপুর থানার ওসি নাজিম উদ্দিন বলেন- আমি এখানে নতুন এসেছি, তাই অনেক কিছুর সম্পর্কে জানিনা। তবে লোকজনের মুখ থেকে আজাদের নাম শুনতে শুনতে মুখস্থ হয়েগেছে। সীমান্ত চোরাচালান ও চাঁদাবাজিসহ সকল অন্যায় কর্মকন্ডা বন্ধ করার জন্য অবশ্যই পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সর্বশেষ - অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত

ঠাকুরগাঁও ভোক্তা অধিকারের অভিযানে ৩ ব্যাবসায়ীর জরিমানা

অশ্লীল ছবি ধারণ করে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা, বাবা গ্রেফতার

লালমোহনে নতুন রাস্তার কাজের উদ্বোধন ও পরিদর্শন করলেন – এমপি শাওন

কোম্পানীগঞ্জে বিএনপির ৩৪৩ নেতাকর্মির বিরুদ্ধে মামলা

লালমোহনে কেকড়া ট্রলির চাপায় শিশু নিহত

গত ৩০ বছরে বয়লার ব্যবসার উত্থান-পতনে মালিকদের উন্নতি হলেও চাতাল শ্রমিকদের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি’ —– সাবেক ভিপি রাগিব আহসান মুন্না

মাদরাসায় যাওয়ার পথে লালমোহনের শিশু নিখোঁজ

মোংলায় শেখ আঃ হাই ৮ দলীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

নোয়াখালীতে ব্যবসায়ীকে জবাই করে হত্যা, লাশ চেয়ারে বসিয়ে রেখে গেল দুর্বৃত্তরা

লালমোহনের সন্তানরা ভোলা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক নির্বাচিত